শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজ

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তৃতীয় চক্রে এসে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচ দিয়ে এই চক্রে পা রাখবে টাইগাররা। আগামীকাল সকাল সাড়ে নয়টা থেকে সিলেটে শুরু হবে ম্যাচটি।
ম্যাচের আগের দিন আজ সংবাদ সম্মেলনে এসে টাইগার অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত বলেন, ‘আমরা প্রায় ১৪টি ম্যাচ খেলব। এ বছর ২টি, পরের বছর ১২টি। এ দুই বছর খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যে ম্যাচগুলো দেশের মাটিতে হবে, এগুলো জেতা খুব জরুরি। দল হিসেবে এটাই প্রথম লক্ষ্য। সঙ্গে বাইরে কীভাবে ভালো খেলতে পারি সেদিকেও খেয়াল থাকবে।’
‘এখানে টেস্ট খুব কম হয়েছে। প্রথম শ্রেণির ম্যাচ যা হয়েছে, ধারণা বলতে এতটুকুই। উইকেট নিয়ে খুব লম্বা আলোচনা হয়েছে তা নয়। উইকেট কী রকম বোঝার চেষ্টা করেছি। হোম অ্যাডভান্টেজ এই কথা বলতে চাই না। প্রতিটি দলই যখন হোমে খেলে, এমনিতেই কিছু সুবিধা পেয়ে থাকে। আমরা সেটা নেওয়ার চেষ্টা করব। কাল ম্যাচ শুরু হলে আরও স্পষ্ট বোঝা যাবে, উইকেট কেমন আচরণ করছে। তবে কিছুটা হলেও ধারণা হয়েছে। কী ধরনের উইকেট হবে এটা বলা তো ঠিক হবে না।’-যোগ করেন শান্ত।
দলের টপ অর্ডার নিয়ে শান্ত বলেন, ‘টপ অর্ডারে জাকির, জয়, সাদমান, সৌরভ ভাই (মুমিনুল হক) আছেন, সঙ্গে আমি আছি, (জাতীয় লিগে) একটা ম্যাচ খেলেছি। তারা তো এনসিএলে খেলেছেন, বিশ্বকাপে ছিলেন না। আমার মনে হয় তাদের খুব ভালো প্রস্তুতি হয়েছে, সবাই মোটামুটি রানের মধ্যে ছিল। আমাদের অবশ্যই খারাপ সময় গেছে, তবে সেটা ওয়ানডে ফরম্যাট ছিল এখন টেস্ট। সর্বশেষ টেস্টে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভালো অবস্থানে ছিলাম। ওই আত্মবিশ্বাস নিয়েই এই ম্যাচ খেলব।’
এদিকে কিউই অধিনায়ক টিম সাউদি বলছিলেন, ‘৪ পয়েন্ট নিয়ে যাওয়া সহজ হবে না। বাংলাদেশ ভালো দল। বিশেষ করে এই কন্ডিশনে। এই টেস্ট সিরিজে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে।’
‘হ্যাঁ উইকেট দেখলাম, এখানে তো বেশি টেস্ট খেলা হয়নি। তবে ভালো উইকেটের আশা করছি। পাকিস্তানে এ বছরের শুরুতে খেলেছি আমরা, ছেলেদের এমন উইকেটে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। নিউজিল্যান্ডে পেস বড় ভূমিকা রাখে। এখানে হয়ত স্পিনের ভূমিকাই বেশি থাকবে। আমাদের মানসম্পন্ন স্পিনার আছে যাদের টেস্টে ভালো রেকর্ড আছে। উইকেট থেকে সকালে বোলাররা সুবিধা পেতে পারে। সব মিলিয়ে উইকেট ভালোই মনে হচ্ছে। এখানে ভিন্ন শক্তি কাজে লাগাতে হবে। নিউজিল্যান্ডে স্পিন বড় ভূমিকা রাখবে না, তবে এখানে স্পিন সহায়কই হতে পারে।’-আরো যোগ করেন তিনি।
সাকিব-লিটনদের না থাকাকে সুযোগ হিসেবে দেখছেন সাউদি, ‘দীর্ঘ দিন ধরেই সাকিব একজন গ্রেট প্লেয়ার। বছরের পর বছর ধরে একজন গ্রেট বাংলাদেশি ক্রিকেটার। লিটনও একজন ক্লাস প্লেয়ার, অতীতে আমাদের বিপক্ষে সে ভালো খেলেছে। তাদের বাংলাদেশ হয়ত মিস করবে। তবে তাদের এই অনুপস্থিতি অন্য কারও জন্য নিজের জায়গা পোক্ত করার সুযোগ।’

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

All Rights Reserved ©2024