মঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আগামী ১ মাসের মধ্যে আফগানিস্তান ভয়াবহ খাদ্য সঙ্কটে পড়তে পারে বলে সতর্ক বার্তা দিয়েছেন জাতিসংঘ

আগামী ১ মাসের মধ্যে আফগানিস্তান ভয়াবহ খাদ্য সঙ্কটে পড়তে পারে বলে সতর্ক বার্তা দিয়েছেন জাতিসংঘ । ধারনা করা হচ্ছে, এ সময় প্রতি তিনজন মানুষের মধ্যে একজনকে অনাহারে থাকতে হবে। এমতবস্থায় দেশ পরিচালনার জন্য সরকার গঠনের চেষ্টা করছে তালেবান। মানবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। এরই মধ্যে দেশটির অর্ধেকের বেশি শিশু একবেলা খাবার পেলে পরের বেলা খাবারের জন্য যুদ্ধ করছে।

খাবারের দাম শতকরা প্রায় ৫০ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে। কয়েকদিনে পেট্রোলের দাম বেড়েছে শতকরা ৭৫ ভাগ। আন্তর্জাতিক সাহায্য ছাড়া আফগানিস্তানের পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হবে বলে সতর্ক করেছে কাতার। ফলে তালেবানরাও পশ্চিমাদের কাছে কৌশলে ধরা। পশ্চিমাদের কথামতো সরকার গঠন ও পরিচালনা না করলে, তারা দেশ চালাতে পারবে না। ফলে এরই মধ্যে তারা জানিয়ে দিয়েছে সবার অংশগ্রহণমূলক সরকার গঠন করবে। সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের দেবে সাধারণ ক্ষমা। এখন পর্যন্ত তাদেরকে আন্তর্জাতিকভাবে কেউ স্বীকৃতি দেয়নি। এই স্বীকৃতি পেতে হলে তাদেরকে পরিবর্তন ঘটাতেই হবে। তাহলেই পাবে বিদেশি সহায়তা।
গত বুধবারও তালেবানরা সশস্ত্র যান সহ কান্দাহারে টহল দিয়েছে। এ সময় তাদের হাতে ছিল দখল করে নেয়া অস্ত্রশস্ত্র। সম্প্রতি কান্দাহারের ওপর দিয়ে মার্কিন হেলিকপ্টার উড়তে দেখা গেছে। তালেবানদের মধ্যে পাইলটের অভাব আছে। তাই মনে করা হচ্ছে, আফগান সেনাবাহিনীর সাবেক কোনো সদস্য এর নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন। ওদিকে একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিমান অবতরণ করেছে কাবুল বিমানবন্দরে। এই দলটি কাবুল বিমানবন্দরকে পুনরায় সচল করতে সাহায্য করবে।

এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সাবেক কর্মকর্তা, অ্যালেক্স জেরদেন বলেছেন, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি খুবই শোচনীয়। সঙ্কট শুরুর অনেক আগে থেকে অনেক আফগান দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাস করছিলেন। তালেবানরা ক্ষমতা দখল করে তা আরো অনেক বেশি কঠিন করে তুলেছে।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

All Rights Reserved ©2024