মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আমার মেয়ে আমার অনুপ্রেরণা

সাধারণত মায়েরাই সবসময় সন্তানদের অনুপ্রেরণা দেন, কিন্তু আমার ক্ষেত্রে সেটা উল্টো। আমার দুটো মেয়েই আমার জীবনের অনেক বড় অনুপ্রেরণা।

আমার প্রতিটি কাজে প্রতিটি ক্ষেত্রে তারা আমাকে ঠিক একজন মায়ের মতন গাইড করে। আমি যখন কোন সমস্যা নিয়ে ভীষণ টেনশনে আছি আর সেই সমস্যার সমাধান করতে পারছি না তখনই আমার বড় মেয়ের সাথে কথা বললে সে যেন মায়ের মতন এক নিমিষেই সেই সমস্যার একটা সমাধান দেখিয়ে দেবে।

সব সময় নানাভাবে আমাকে অনুপ্রাণিত করবে, যে কোন ধরনের নেগেটিভিটি থেকে সরিয়ে পজেটিভ থাকার প্রেরণা যোগাবে। এমনকি আমার ছোট মেয়ে ও একেক সময় আমার একেকটা সমস্যার সমাধান দেবে মাশাআল্লাহ, সেটা দেখে আমি নিজেই অবাক হয়ে যাই আলহামদুলিল্লাহ।

আমার বড় মেয়ের চাকরি করার কারণে লন্ডনে বসবাস করে। সে যখন বাসায় আসে আমরা মা-মেয়ের কত গল্প জমে থাকে।আমাদের গল্প বলা শুরু হয় সমুদ্রের পাশ দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে আবার কখনো আমরা মা মেয়ে কফির কাপ হাতে নিয়ে গল্পে বসি তখন যেন আমরা অন্য এক ভুবনে চলে যাই।

কত অনুপ্রেরণামূলক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়, নিজেদেরকে নিয়ে, আমাদের আশেপাশে মানুষের জীবনের ঘটে যাওয়া ছোট-বড় অভিজ্ঞতা গুলো নিয়ে, সেগুলো থেকে আমরা কি শিক্ষা নেবো এবং আমাদের মতন সাধারন মানুষরা কি করে যে যার যার জায়গা থেকে তার সাধ্যমত প্রচেষ্টায় গরিব-দুঃখীদের পাশে গিয়ে দাঁড়াতে পারি, ওদের মুখে কি করে একটু প্রশান্তির হাসি ফোটাতে পারি এসব নানান বিষয় নিয়েই হয় আমাদের আলোচনা। আর সেই আলোচনার ফলস্বরূপ আমাদের মা মেয়ের সৃষ্টি একটি চ্যা‌রি‌টি অর্গানাইজেশন “দা স্বপ্ন ফাউন্ডেশন” যেখান থেকে গরিব-দুঃখীদের নিয়ে কাজ করা শুরু হয়েছে আলহামদুলিল্লাহ।

এই ভাবেই কফির কাপ হাতে নিয়ে চলতে থাকে আমাদের মা মেয়ের আকাশ ছোঁয়া সব স্বপ্নের গল্প আর সেই গল্প চলাকালীন আমরা একজন আরেকজনের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখি আলহামদুলিল্লাহ। আমার মনে আমিই বেশি শিখি ওর কাছ থেকে আর তাই আল্লাহ সুবহানাতায়ালার শুকরিয়া আদায় করে মুগ্ধ চোখে তাকিয়ে থাকি আমার মেয়েদের দিকে আর মনে মনে বলি, আল্লাহ তোদের অনেক লম্বা নেক হায়াত দান করেন এবং তোদের প্রতিটি স্বপ্ন সফল করেন।

এতক্ষণ আমি আপনাদের আমার দুই মেয়ের গল্প শোনালাম। আমার ছেলের বউ নিয়ে আমি যে তিন কন্যার জননী সেটা আপনাদের এখনও বলা হয়নি।

আমার মেয়ে দুটি যেমন সোনার টুকরা, ঠিক তেমনি আমার ছেলের বউটিও মাশাআল্লাহ অনেক বুদ্ধিমতী এবং ধৈর্যশীল একটা মেয়ে। আমার মেয়েদের মতন সেও আমাকে অনেক বেশি ভালোবাসে, আমার খেয়াল রাখে। কোন কিছু নিয়ে আমাকে চিন্তিত হতে দেবে না এবং যে কোনো সমস্যায় পজিটিভ পরামর্শ দেবে। আমি তাকে অনেক বেশি স্নেহ করি। তার দৃষ্টিতে আমি “ওয়ার্ল্ড বেস্ট  মাদার ইন লো।”

আজ কন্যা দিবস। আজকের এই দিনে আমার তিন মেয়ে সহ পৃথিবীর সব মেয়েগুলো ভালো থাকুক, সুখে থাকুক, জীবনে সফল হোক, পূরণ করুক তাদের যত স্বপ্ন। বিশ্বের প্রতিটি কন্যাদের জন্য এই দোয়া এবং শুভকামনা।

লেখক: মরিয়ম চৌধুরী

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

All Rights Reserved ©2024