শনিবার, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ইউক্রেন সম্মেলনের আগে শঙ্কার কথা জানালেন জার্মান চ্যান্সেলর

আগামী জুন মাসে সুইজারল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ইউক্রেন সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সম্মেলনকে ঘিরে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎসের তেমন কোনো প্রত্যাশা নেই৷ ইউক্রেনে শান্তি ফেরানোর লক্ষ্যে আয়োজন করা এই সম্মেলনে অবশ্য রাশিয়াকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।

 

জার্মান চ্যান্সেলর আগেভাগেই সুইজারল্যান্ডের সম্মেলন নিয়ে অবাস্তব প্রত্যাশা সম্পর্কে সতর্ক করে দিয়েছেন৷ জার্মানির ‘স্ট্যার্ন’ পত্রিকার সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, সম্মেলনে ইউক্রেন যুদ্ধের সমাপ্তি সম্পর্কে দরকষাকষি হবে না৷ সবকিছু ভালোভাবে এগোলে বড়জোর রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে সরাসরি সংলাপ হতে পারে বলে শলৎস মনে করেন। সম্মেলনে আলোচনার তালিকায় পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিরাপত্তা, শস্য রপ্তানি, বন্দি বিনিময় ও পরমাণু অস্ত্র প্রয়োগের বিষয়ে চূড়ান্ত সংযমের মতো বিষয় থাকছে।

 

এদিকে ইউক্রেনের জন্য ইউরোপের বাকি দেশগুলি যথেষ্ট অস্ত্র দিচ্ছে না বলে জার্মান চ্যান্সেলর কিছুটা ক্ষোভ প্রকাশ করেন৷ যদিও সোমবার জার্মানি ও নর্ডিক দেশগুলো রাশিয়ার লাগাতার হামলার মুখে ইউক্রেনের জন্য অস্ত্র সাহায্য চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছে৷ জার্মান চ্যান্সেলর শলৎস স্টকহোমে সুইডেন, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, আইসল্যান্ড ও নরওয়ের প্রধানমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনার পর বলেন, যত কাল প্রয়োজন ইউক্রেনকে সহায়তা করা হবে।

 

ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী পেতেরি অর্পো খারকিভ শহরের কাছে রাশিয়ার সাম্প্রতিক সামরিক অভিযান সম্পর্কে দুশ্চিন্তা প্রকাশ করে বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পশ্চিমা বিশ্বের দ্রুত পদক্ষেপের প্রয়োজন রয়েছে৷ তা না হলে খারকিভের দশা মারিউপোলের মতো হতে পারে।

 

অন্যদিকে সুইজারল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ইউক্রেন সংক্রান্ত সম্মেলন নিয়ে সতর্ক করে দিয়েছেন রাশিয়ার ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ।তার মতে, রাশিয়াকে ছাড়া এমন আলোচনার অর্থ মস্কোকে সরাসরি ‘আল্টিমেটাম’ দেওয়া৷ তিনি বলেন, শিশুকে বাইরে রেখে শিক্ষকরা ঘরের মধ্যে যেভাবে শাস্তি স্থির করেন, রাশিয়ার সঙ্গে সে রকম আচরণ করা যাবে না।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

All Rights Reserved ©2024