বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

করোনার ওষুধের সাফল্য, ভ্যাকসিনের বিকল্প নেই বলছেন বিশেষজ্ঞরা

ফাইজার বায়োএনটেকের তৈরি করোনার মুখে খাওয়ার ‍ওষুধ খুব দ্রুত নেওয়া হলে তা করোনা প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে জরিপে উঠে এসেছে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন ভ্যাকসিন গ্রহণকে প্রাধান্য দিতে হবে কারণ ভ্যাকসিনের কোন বিকল্প নেই।

কায়সার ফ্যামিলি ফাউন্ডেশনের জরিপ অনুসারে শতকরা ৭২ ভাগ আমেরিকান প্রাপ্তবয়স্করা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ পেয়েছেন। তবে ভ্যাকসিনের মূল্য এবং সুরক্ষার বিষয় মতের পার্থক্যের কারণে ভ্যাকসিনেশনের গতি অনেকটা কমে এসেছে।

কয়েকজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আশঙ্কা করছেন যে, করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধ টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়াকে আরো বাধাগ্রস্ত করতে পারে। সিটি ইউনিভার্সিটি অফ নিউইর্কের স্কুল অফ পাবলিক হেলথের এক বিশেষজ্ঞ স্কট রাটজান জানান,৩ হাজার মার্কিন নাগরিকের ওপর করা জরিপের প্রাথমিক ফলাফলে দেখা যায়,করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধ মানুষের টিকা দেওয়ার প্রচেষ্টাকে বাধাগ্রস্ত করতে পারে। রাটজান বলেন, জরিপে প্রতি আটজনের মধ্যে একজন বলেছেন যে তারা টিকা দেওয়ার চেয়ে ওষুধের মাধ্যমে চিকিৎসা করাতে ইচ্ছুক।

এদিকে ফাইজার-বায়োএনটেকর তৈরি মুখে খাওয়ার ওষুধ কভিড সংক্রমণের চিকিৎসায় হাসপাতালে যাওয়ার কিংবা মৃত্যুর ঝুঁকি ৮৯ শতাংশ কমিয়েছে বলে বলছে ফাইজার । ফাইজারের এই ফলাফল থেকে বোঝা যায় করোনার ওষুধ করোনার মৃত্যু ও হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা অর্ধেক কমিয়ে দিতে সক্ষম।

মলনুপিরাভির নামে পরিচিত সেই ওষুধটি বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে শর্তসাপেক্ষে অনুমোদন পেয়েছে। ডিসেম্বরের দিকে বাজারে আসতে পারে এই ওষুধ।

ভ্যাকসিন বিশেষজ্ঞ এবং বেইলর কলেজ অফ মেডিসিনের মলিকুলার ভাইরোলজি এবং মাইক্রোবায়োলজির অধ্যাপক ড. পিটার হোটেজ বলেছেন, “একচেটিয়াভাবে একটি অ্যান্টিভাইরাল ওষুধের উপর নির্ভর করে, আপনি এটা কীভাবে গ্রহণ করবেন তার ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। যদিও, এটি কিছুই না হওয়ার চেয়ে বরং ভালো।”

রয়টার্সের নেওয়া সাক্ষাৎকারে ছয়জন সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধের বিষয়ে উৎসাহী ছিলেন এবং তারাও বলেন যে, ভ্যাকসিনের বিকল্প নেই। মার্কিন ভেটেরান্স এর সমীক্ষা অনুসারে , করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধ ৮৬.৮ শতাংশ হাসাপতালে ভর্তি হওয়ার ঝুঁকি কমায়।

জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির জরুরি চিকিৎসক ও জনস্বাস্থ্যের অধ্যাপক এবং বাল্টিমোরের প্রাক্তন স্বাস্থ্য কমিশনার ডাঃ লিয়ানা ওয়েন বলেছেন, “আমি মনে করি ফাইজারের খবরটি ভয়ঙ্কর খবর। এটি টিকা দেওয়ার সাথে মিলিয়ে দেওয়া যায় তবে শুধুমাত্র ওষুধ খাওয়ার মাধ্যমে টিকা দেওয়ার বিষয়টি প্রতিস্থাপন করা যায় না।”

ফাইজার এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অ্যালবার্ট বোরলা বলেন, “টিকা না দেওয়ার সিদ্ধান্ত বড় ভুল হবে, এগুলি চিকিৎসা। শুধুমাত্র নিজেকে রক্ষা করার জন্য না , আপনার পরিবার ও সমাজকে রক্ষা করার জন্য টিকা দিতে হবে।”

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

All Rights Reserved ©2024