সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কোম্পানীগঞ্জে ব্যবহার অনুপযোগী পাবলিক টয়লেট: চরম ভোগান্তি

সোহেল রানাঃ কোম্পানীগঞ্জ সদরে অবস্থিত গুরুত্বপূর্ণ থানা বাজারে ১টি পাবলিক টয়লেট থাকলেও সেই  টয়লেটেরই বেহাল দশা। অপরিষ্কার- অপরিচ্ছন্ন টয়লেট, আলো-ছিটকিনি নেই,পায়খানা- প্রস্রাব করার কোন পরিবেশ নেই।  অপরিস্কার বদনা ও অপর্যাপ্ত পানির কারণে নিয়মিত সমস্যায় পরিণত হয়েছে। তাই উন্মুক্ত জায়গায় প্রাকৃতিক কর্ম সারছেন বাজারমুখী ভাসমান লোকজন।

খাবার হোটেলের পেছনে ময়লার স্তূপে টয়লেট ব্যবহার করেন নিরুপায় হয়ে। হোটেল মালিকেরা কোনোমতে প্রস্রাবের জায়গা করে দিলে সেখানে পায়খানা সেরে চলে যায় অনেকে। যে প্রস্রাবখানা, যেরকম ব্যবস্থা রয়েছে সেখানে রীতিমতো নাকে রুমাল চেপে কোন রকমে কাজ শেষ করতে হয়।  যেভাবে ময়লা জমে আছে তাতে এডিস মশার লার্ভা ও ক্ষতিকর জীবাণু থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

জানা যায়, থানা বাজারে প্রায় ৫০০ দোকানে ব্যবসায়ে জড়িত প্রায় ২ হাজার লোকের বসবাস। চাহিদার তুলনায় থানা বাজারে সরকারি পাবলিক টয়লেটের সংখ্যা কম। তারপরও যেটি আছে সেই  পাবলিক টয়লেট ব্যবহার পুরো অনুপযোগী।

থানা বাজারের চায়ের দোকানদার দীন ইসলাম জানান, সকাল ৬ টার দিকে দোকান খুলে রাত ১১ টা পর্যন্ত চা- পান ও সিগারেট বিক্রিতে ব্যস্ত থাকি। এরমধ্যে কয়েকবার প্রাকৃতিক কাজ সাড়তে হয়, আমার দোকানের কাছেই পাবলিক টয়লেট থাকলেও সেটি অনুপযোগী হওয়ায় নিজ বাসায় গিয়ে প্রাকৃতিক কাজ সাড়তে হয়। তাই তাড়াতাড়ি ব্যবহার উপযোগী করলে আমরা ছোট দোকানদারা বেশি সুবিধা হত।

থানা বাজারের পাবলিক টয়লেট ঘুরে দেখা যায়, সরকারি  অর্থায়নে ১ টি নির্মিত টয়লেটের মধ্যে বাজারের মাছ বাজারের  পাশে যে টয়লেটটি রয়েছে সেটি ব্যবহারে পুরো অনুপযোগী । টয়লেট সারতে পাহারাদার র্নিধারিত মূল্যে টাকা দিয়ে ব্যবস্থা করা হলেও পথচারী ও ব্যবসায়ীরা অনেক উপকারী হবে বলে জানান অনেকেই।

পর্যাপ্ত পাবলিক টয়লেট না থাকায় পথচারী, হকার, রিকশাচালক, ভিক্ষুক ও ভাসমান মানুষ বিভিন্ন উন্মুক্ত জায়গায় প্রাকৃতিক কর্ম সারছেন। টেলিকম ব্যবসায়ী রাজু আহমেদ বলেন, ‘টয়লেটের জরুরী মুহুর্তে প্রতিনিয়ত বিপাকে পড়তে হয়। এত বড় বাজারে সামান্য প্রস্রাব সারার মতোও ব্যবস্থা নেই। যা আছে সব নষ্ট। অনেক লোকজন ব্যবসায়ের কাজে বাজারে আসে। জরুরী মুহুর্তে তাদের অবস্থাও খারাপ হয়ে যায়।’

থানা বাজারের পুরাতন ব্যবসায়ি  হাজী তেরা মিয়া  বলেন, ‘থানা বাজার সদরে অবস্থিত হওয়ায় এটি গুরুত্বপূর্ণ বাজার। প্রায় ৫০০ দোকান রয়েছে এই বাজারে। দোকানের মালিক-কর্মচারী এবং বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ব্যবসায়ের উদ্দেশ্যে আসা লোকজনের জন্য থাকা ১টি মাত্র পাবলিক টয়লেট সেটি আবার অনুপযোগী, যা খুবই দুঃখজনক। অনুপযোগী টয়লেট ব্যবহার উপযোগী করতে পারলে বাজারমুখী মানুষের ভোগান্তি ও কষ্ট লাঘব হবে।’

কোম্পানীগঞ্জ সদরে থানা বাজার অবস্থিত হওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ বাজার হিসেবে রয়েছে পরিচিতি। পথচারী, মুসল্লী, বিভিন্ন জায়গা থেকে আগত চুকুরীজীবি,ব্যবসায়ি,হকার, রিকশা চালক ও দোকানীদের থেকে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়তে হয় মহিলাদের। তাই সকলের দাবি দ্রুত যেন এই অনুপযোগী পাবলিক টয়লেট টি স্বয়ংসম্পূর্ণভাবে ব্যবহারের উপযোগী করা হয়।

১ নং ইসলামপুর পশ্চিম  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান  শাহ মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন  বলেন, থানা বাজারে অনেকদিন আগে সরকারিভাবে নির্মিত হয়েছে পাবলিক টয়লেট। দীর্ঘদিন দিন ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে আছে, তাই এটি সংস্কার করা জরুরি।  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, লুসিকান্ত হাজং জানান, আগে জানতাম না। পাবলিক টয়লেট জরুরি বিষয়,খোঁজ নিয়ে দ্রুত সংস্কারের ব্যবস্থা করা হবে।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

All Rights Reserved ©2024