রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাংলা সাহিত্যে বঙ্গবন্ধু

ফারজানা চৌধুরীঃ বঙ্গবন্ধুর সাথে সাহিত্য এবং বাংলা সাহিত্যিকদের গভীর সম্পর্ক ছিলো। স্বাধীনতোত্তর বাংলা একাডেমীর প্রথম বাংলা সাহিত্য সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু বলেন, “সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে যে দুর্নীতির শাখা প্রশাখা বিস্তার করেছে লিখনির মাধ্যমে তার মুখোশ খুলে দিতে হবে।”

শেখ মুজিব তাঁর কথায়, লিখনীতে, ভাষণে, রবীন্দ্রনাথ, নজরুলের অনেক কবিতার কথা উদাহরণ দিতেন। তাঁর লিখিত গ্রন্থ, বক্তৃতা, কথামালায় ফুটে উঠেছে একজন জাত সাহিত্যিকের চরিত্র। তাঁর লিখিত ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’, ‘কারাগারের রোজনামচা’ দুটি বইয়ের পরতে পরতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে উচ্চ মার্গের সাহিত্যিক ছায়া।

কবিরা নাকি ভবিষ্যৎ বলতে পারে তার প্রমাণ পাওয়া যায় ‘বায়ান্নোর দিনগুলো’ প্রবন্ধে। পাকিস্তানিদের পরাজয় যে সুনিশ্চিত সেটি তিনি জেলে বসে বুঝতে পেরেছেন। তাই তিনি লিখেছেন-
“মানুষের যখন পতন আসে,
তখন পদে পদে ভুল হতে থাকে”।

শত সহস্র গল্প, কবিতা, প্রবন্ধ, নিবন্ধ কোনো একজন ব্যক্তিকে কেন্দ্র করে হয়েছে তার দৃষ্টান্ত পৃথিবীতে খুব কম। স্বাধীনতার পূর্বাপর বাংলা সাহিত্য এমন কোনো সাহিত্যিক জন্ম গ্রহণ করে নি যে, বঙ্গবন্ধু কে নিয়ে দু’কলম লিখেন নি। আধুনিক বিশ্বে কোনো রাষ্ট্রনায়কের নামে এতো সাহিত্য কোথাও রচিত হয় নি।

প্রায় তেরশ’র অধিক সাহিত্য বঙ্গবন্ধুর নামে রচিত হয়েছে। কবি অন্নদাশংকর রায় লিখেছেন-‘যতদিন রবে পদ্মা যমুনা গৌরি মেঘনা বহমান, ততদিন রবে তোমার কীর্তি শেখ মুজিবুর রহমান’। কবি নির্মলেন্দু গুনের প্রায় সাহিত্য বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে।

ঐতিহাসিক ‘হুলিয়া’ কবিতায় তিনি বঙ্গবন্ধুর নাম নিয়েছেন। ‘আমি আজকে কারো রক্ত চাইতে আসিনি’ কবিতায় লিখেছেন- “একটি গোলাপ ফুল গতকাল আমাকে বলেছে, আমি যেন কবিতায় শেখ মুজিবের কথা বলি”।

তার আরেক ঐতিহাসিক ‘স্বাধীনতা শব্দটি কীভাবে আমাদের হলো’ কবিতায় তিনি বঙ্গবন্ধুকে রবীন্দ্রনাথের সাথে তুলনা করেছেন। ড. মুহাম্মদ এনামুল হক সর্বপ্রথম বঙ্গবন্ধুকে সর্বযুগের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি অভিধা দিয়েছেন।বাংলা সাহিত্যে, গল্পে, কবিতায়, উপন্যাসে বঙ্গবন্ধু নিয়েছেন নীরব বিজয়ের স্থান।

সাহিত্যের সেরা ৫০ টি গল্পের মধ্যে কবি আবুল ফজলের মৃতের আত্মহত্যা,নিহত মুখ,সৈয়দ শামছুল হকের নিয়ামতকে নিয়ে গল্প নয়,এমদাদুল হক মিলনের রাজার চিঠি,মানুষ কাঁদছে,হুমায়ূন আজাদের যাদুকরের মৃত্যু,এইসব বিখ্যাত গল্প বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা। এছাড়া দেয়াল,দুধের গেলাশে নীল মাছি,জনক জননীর গল্প, শেষ দেখা,ইত্যাদি গল্প, কবিতা শেখ মুজিবকে নিয়ে লেখা।

পরিশেষে বলতে হয়, বঙ্গবন্ধু শুধু একজন রাজনৈতিক ব্যক্তি ছিলেন না, তাঁর মধ্যে মানবিক, সৃজনশীল অনেক যোগ্যতাসমষ্টি ছিল, যা তাঁকে করেছে ইতিহাসে অনন্য।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

All Rights Reserved ©2024