মঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাড়ি থেকে নিয়ে হত্যা করে বাড়ির গর্তে চাপা

মাদারীপুরের শিবচরে শিশু কুতুব উদ্দিন হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন শিশুর আপন চাচি নার্গিস বেগম। শনিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন শিবচর থানার ওসি (তদন্ত) আমীর হোসেন সেরনিয়াবাদ।

তিনি জানান, মাদারীপুরের শিবচরে অপহরণের ৩ দিন পর শরীয়তপুরের জাজিরায় আপন চাচার বাড়ির নির্মাণাধীন ভবনের টয়লেটের মেঝের নিচ থেকে বালু চাপা অবস্থায় শিশু কুতুব উদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় তার আপন বড় চাচি নার্গিস আক্তার ও তার মেয়ে হাফসা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়।

পরে শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে মাদারীপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের হাজির করা হয়। এসময় চাচি নার্গিস আক্তার হত্যার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।
মাদারীপুর আদালতের পুলিশ পরিদর্শক রমেশ চন্দ্র দাস বলেন, ‘শিশু হত্যার দায়ে চাচি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আর মেয়েকে আদালতের জেলে রাখা হয়েছে।

রবিবার সকালে মেয়েকে আদালতে হাজির করলে তার বিষয় সিদ্ধান্ত হবে। ’
উল্লেখ্য, আড়াই বছর বয়সী শিশু কুতুব উদ্দিন মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকার ইসমাইল বেপারীর সন্তান। কুতুব উদ্দিনের বড় চাচি নার্গিস আক্তার ও তার মেয়ে কৌশলে ১৪ সেপ্টেম্বর সকালে তাকে বাড়ি থেকে নিয়ে হত্যা করে বাড়ির গর্তে চাপা দেয়।

এ ঘটনায় শিশুর বাবা শিবচর থানায় ১৫ সেপ্টেম্বর অপহরণ মামলা করেন।
পরে নার্গিস আক্তার ও তার মেয়েকে আটক করে পুলিশ। শুক্রবার দিবাগত ৩টার দিকে তাদের বাড়ি থেকে শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় হত্যা মামলা করা হয়েছে।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

All Rights Reserved ©2024