রবিবার, ২৩শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ব্রণ দূর করতে নিমপাতার ব্যবহার

ব্রণের সমস্যা নাছোড়বান্দা। এটি দেখা দিলে সহজে যেতে চায় না। আপনি যদি ব্রণ নিয়ে সমস্যায় ভুগে থাকেন এবং অনেককিছু ব্যবহার করেও সুফল না পান তবে এবার থেকে নিমপাতা ব্যবহার করতে পারেন। কারণ ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করার কাজে নিমপাতা একাই একশো! ব্রণের দাগ থেকে শুরু করে চুলকানি- ত্বকের নানা সমস্যা দূর করতে এটি বেশ কার্যকরী। চলুন জেনে নেওয়া যাক ব্রণ দূর করতে নিমপাতার ব্যবহার-

১. নিমপাতার প্যাক

প্রথমে একমুঠো পরিষ্কার নিমপাতা নিন। এরপর তা ভালো করে বেটে নিন বা পেস্ট করে নিন। এবার সেই পেস্টের সঙ্গে মেশান সামান্য লেবুর রস। আর মেশাতে পারেন অল্প গোলাপ জল। পেস্ট খুব বেশি পাতলা করবেন না। এবার সেই মিশ্রণ মুখে ভালো করে লাগিয়ে নিন। মুখের পাশাপাশি ঘাড়ে, বগলে, কনুইতেও লাগিয়ে নিতে পারেন। এভাবে রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে ব্যবহার করলে দ্রুতই ব্রণের সমস্যা দূর হবে।

 

২. নিমপাতা ও অ্যালোভেরা

ত্বকের যত্নের জন্য উপকারী একটি উপাদান হলো অ্যালোভেরা। এর সঙ্গে নিমপাতা মিশিয়ে ব্যবহার করলে আরও বেশি উপকার পাবেন। ব্রণ ও এর দাগছোপ দূর করার জন্য নিম পাতা শুকিয়ে নিন গুঁড়া করে নিতে হবে। এবার সেই গুঁড়া অ্যালেভেরার পাতার ভেতরের জেলের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। এবার পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এরপর সামান্য লেবু আর মধু মিশিয়ে তা মুখে মাখুন। পরে ভালো করে ধুয়ে নিন।

 

৩. নিমপাতা, চন্দন বা হলুদ

ব্রণ দূর করার জন্য আপনি নিমপাতার সঙ্গে চন্দন মিশিয়েও একটি প্যাক তৈরি করতে পারেন। যাদের ঠান্ডালাগার ভয় রয়েছে তারা চন্দনের বদলে হলুদ বাটাও মেশাতে পারেন এই প্যাক তৈরিতে। তবে ব্রণের সমস্যার ক্ষেত্রে চন্দনই বেশি কার্যকরী। এই দুই উপাদান মিশিয়ে নিন। এরপর সেই মিশ্রণ মুখে লাগিয়ে অপেক্ষা করুন মিনিট দশেক। এরপর মুখ পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। শুকনো তোয়ালে দিয়ে আলতো হাতে মুখ মুছে মুখে গোলাপজল লাগিয়ে নিন। এভাবে নিয়মিত ব্যবহার করলেই উপকার পাবেন।

 

 

 

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

All Rights Reserved ©2024