মঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ভোটে সবাই এলে আমার আত্মাটা তৃপ্তি পেত : ইসি হাবিব

নির্বাচন কমিশনার (ইসি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. আহসান হাবিব খান বলেছেন, ‘আমরাও চাই, দেশের জনগণও চায় ভোটে শতভাগ রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ। কিন্তু ওনাদের (বিএনপির) অ্যাজেন্ডা একটু আলাদা। এই জিনিসটা সংবিধানের মধ্যে নেই, তা আমাদের কাজ নয়। এটা রাজনৈতিক দলের মধ্যে বসে যেটা সিদ্ধান্ত নেবে, সেটাই আমরা স্বাগত জানাব। আমার আত্মাটা তৃপ্তি পাইত, যদি নির্বাচনে সবাই আসত।’

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন-২০২৪ উপলক্ষে ২৫ নভেম্বর শনিবার বিকেলে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে ঝালকাঠি, পিরোজপুর ও বরগুনা জেলার নির্বাচন-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে দিকনির্দেশনামূলক সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ইসি হাবিব এসব কথা বলেন।

ইসি আহসান হাবিব বলেন, ‘বিএনপি যদি নির্বাচনে আসতে চায়, তাহলে আমরা কমিশন বসে সিদ্ধান্ত নেব তফসিল পেছানোর ব্যাপারে। আমরা ভোটারদের আশ্বস্ত করতে চাই, তারা নির্ভয়ে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট দিতে পারবেন। সে ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। ভোটারদের নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে এসে ভোট প্রয়োগের জন্য সব রকমের ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন।’

নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আমরা ডিসি, এসপি ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সবার কাছ থেকে শতভাগ সহায়তা পেয়ে সুন্দর নির্বাচন দিতে চাই। একজন ভোটার ভোটকেন্দ্র পর্যন্ত আসছে কি না, বাধাগ্রস্ত হচ্ছে কি না এবং ভোটটি সঠিকভাবে দিতে পারল কি না, এটা খেয়াল রাখতে হবে। ভোটার ভোট দিয়ে সাংবাদিকদের কাছে যদি বলে ভোট সুষ্ঠু হয়েছে, এটাই আমাদের সার্থকতা। আর যদি বলে কেন্দ্রে অরাজকতা চলছে, পেশিশক্তির প্রভাব চলছে, তাহলে কিন্তু সবকিছুই জিরো।’

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক ফারাহ গুল নিঝুমের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বরিশালের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. পারভেজ হাসান, বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্নেল রেজাউল কবির, পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক মো. জাহিদুর রহমান, বরগুনার জেলা প্রশাসক মো. রফিকুল ইসলাম, ঝালকাঠির পুলিশ সুপার মো. আফরুজুল হক টুটুল, বরগুনার পুলিশ সুপার মো. আব্দুস সালাম, পিরোজপুরের পুলিশ সুপার মো. শফিউর রহমান প্রমুখ।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

All Rights Reserved ©2024