শনিবার, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মিষ্টি বেশি খেলে কী হয়?

মিষ্টি খেতে পছন্দ করেন অনেকেই। কিন্তু অতিরিক্ত চিনি বা মিষ্টি আমাদের শরীরের নানাভাবে ক্ষতি করতে পারে। মিষ্টি বেশি খেলে কী হয় তা জানা আছে কি? আমাদের মধ্যে অনেকেই জানেন না বেশি মিষ্টি আমাদের জন্য কী কী ক্ষতি করতে পারে। তাই জেনে নিয়ে সতর্ক হওয়া জরুরি। তাহলে সুস্থ থাকা সহজ হবে। মিষ্টি খাওয়ার ক্ষেত্রেও রাখতে হবে নিয়ন্ত্রণ। চলুন জেনে নেওয়া যাক মিষ্টি বেশি খেলে কী হয়-

নিষ্ক্রিয়তা

মিষ্টি অরেক্সিন কোষের কার্যকলাপ হ্রাস করে। এই কারণেই ভারী কার্বোহাইড্রেট খাবারের পরে ঘুমিয়ে পড়ে এবং অলস বোধ করে। অতিরিক্ত চিনি খাওয়ার কারণে নিষ্ক্রিয়তা এবং অলসতা দেখা দিতে পারে। তাই অলসতা দেখা দিলে সতর্ক হোন। আপনার খাবারের তালিকার দিকে খেয়াল করুন।

শ্বাসকষ্ট

আপনার যদি প্রায় শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় তবে সতর্ক হোন। অতিরিক্ত চিনি বা মিষ্টি খাওয়ার পরে হৃৎপিণ্ডের পাম্পিং লেভেল বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বুক ধড়ফড় হতে পারে। কখনও কখনও এটি শ্বাসকষ্টের কারণও হতে পারে।

উচ্চ রক্তচাপ

অতিরিক্ত চিনি খাওয়ার অভ্যাস শরীরের উচ্চ রক্তচাপের সঙ্গে সম্পর্কিত। শরীরে চিনির অনিয়ন্ত্রিত মাত্রা উচ্চ রক্তচাপের একটি প্রধান কারণ হিসেবে পরিচিত। এটি বিশ্বাস করা হয় যে চিনি রক্তচাপের জন্য লবণের চেয়েও খারাপ। এক্ষেত্রে অতিরিক্ত ঘাম হওয়া একটি উপসর্গ হতে পারে যেদিকে নজর দেওয়া উচিত।

 

উচ্চ কোলেস্টেরল

উচ্চ কোলেস্টেরলের মাত্রা কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকি বাড়ায়। অতিরিক্ত চিনি খেলে তা শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়িয়ে ফেলে। যদি আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা ইদানীং বেশি হয়ে থাকে, তাহলে সতর্ক থাকুন। অতিরিক্ত চিনি বা মিষ্টি খাওয়া হচ্ছে কি না সেদিকে খেয়াল রাখুন।

পিসিওডি

বর্তমানে নারীদের ক্ষেত্রে পিসিওডি বা পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিন্ড্রোম অনেক বেশি পরিচিত হয়ে উঠেছে। এক্ষেত্রে ডিম্বাশয়ের গায়ে ছোট সিস্ট পাওয়া যায়। এর কিছু লক্ষণের মধ্যে রয়েছে অনিয়মিত মাসিক, মুখের লোম বা ওজন বৃদ্ধি। যদিও এটি প্রধানত জীবনযাত্রার অভ্যাস এবং ব্যায়ামের অভাবের কারণে হয়ে থাকে, তবে অতিরিক্ত পরিমাণে চিনি খাওয়ার মতো খাদ্যাভ্যাসও এর জন্য দায়ী।

 

 

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

All Rights Reserved ©2024