বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘যারা নিবার্চন বানচাল করতে চায়, জনগণ তাদের ক্ষমা করবে না’

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, সরকার পরিবর্তনের একমাত্র পথ নির্বাচন। সেই নির্বাচন যারা ঠেকাতে চায় তারা রাষ্ট্রদ্রোহী। নির্বাচন ঠেকানো এবং দেশের বিরুদ্ধে যারা ষড়যন্ত্র করছে তারা রাষ্ট্রদ্রোহী। এই রাষ্ট্রদ্রোহীদের চিহ্নিত করে বর্জন করতে হবে। তাদেরকে প্রতিরোধ-প্রতিহত করতে হবে। রাষ্ট্রদ্রোহীদের স্থান বাংলাদেশে হবে না।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত। তারা দেশের সংবিধান মানে না। গণতন্ত্র মানে না। নির্বাচন মানে না। নির্বাচনে তারা জনগণের সমর্থন পাবে না। তাই তারা ষড়যন্ত্র করে যেনতেন পথে ক্ষমতায় আসতে চায়। তারা নির্বাচনে ছেড়ে এখন ষড়যন্ত্র করতে লিপ্ত।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদে উপমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে ঢাকাস্থ শরীয়তপুরের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনী আমেজে বিএনপির সব কর্মসূচি হাওয়ায় মিলে গেছে। দেশের মানুষ যখন নির্বাচনমুখী তখনও তারা (বিএনপি) অনলাইনে বসে বসে উঁকি দিয়ে কর্মসূচি ঘোষণা করছে। এতে কিছু সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ছাড়া আর কিছুই হচ্ছে না। তারা ফ্লাইওভারের ওপর থেকে বোমা নিক্ষেপ করছে। সারাদেশে যানবাহনে আগুন দিচ্ছে। একটি রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি এমন কীভাবে হয়? এমন ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। পৃথিবীর কোথাও এমন রাজনৈতিক কর্মসূচি নেই। তারা অযৌক্তিকভাবে হরতাল অবরোধ দিয়ে বাসে আগুন দিয়ে দেশের অর্থনীতির ক্ষতি করছে। তারা এদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করতে চায়। এসব ধ্বংসাত্মক কর্মসূচির কারণে দেশের মাঝারি ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। তারা এখনও নির্বাচন বানচালের দিবাস্বপ্নে বিভোর। তাদের এই দিবাস্বপ্ন কখনোই পূরণ হবে না। জনগণ বারবার তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

তিনি বলেন, ভয়-ভীতি প্রদর্শন, সন্ত্রাস, ষড়যন্ত্র এইগুলোই বিএনপির রাজনীতির অস্ত্র, রাজনৈতিক কৌশল। এর বাইরে তারা আর কোনো কৌশল জানে না। তারা আজও সেই ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে, যারা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে চায়, তারা জননেত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আছে, উন্নয়নের সঙ্গে আছে। এই উন্নয়ন এবং দেশের শান্তি বিএনপির ভালো লাগে না। এটাকে বিনষ্ট করাই তাদের মূল উদ্দেশ্য। তাই দেশকে আরও এগিয়ে নিতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে উপমন্ত্রী বলেন, আপনাদের সুখে দুঃখে সবসময় আমি আপনাদের পাশে ছিলাম। নিউমার্কেট ও বঙ্গবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে ছিলাম। ভবিষ্যতেও আপনাদের যেকোনো প্রয়োজনে পাশে থাকব। আপনারাও আমার পাশে থাকবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহসভাপতি নুর এ আলম আশিক, ব্যবসায়ী নেতাদের মধ্যে মো. আবুল বাশার হাওলাদার, বিল্লাল কোতোয়াল, আসাদ খান, দেলোয়ার কোতোয়াল, জাকির বেপারী, মোস্তফা আকন, মো. ওলি উল্লাহ, মো. শামীম হাওলাদার, নিজাম আকন, লোকমান আকন, মাসুদ চোকদারসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

All Rights Reserved ©2024