বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রনি গ্রামে গেলে কী করেন?

চলনবিলের সঙ্গে গ্রামটার প্রেম বহুদিনের। থৈ থৈ পানি আর পাল তোলা নৌকা যে গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যায় সেই গ্রামটির নাম বিলদহর। নাটোর জেলার সিংড়া থানার এই গ্রামের আলোবাতাসে বেড়ে উঠেছেন এক তরুণ। যে তরুণ দেশের সবার কাছে পরিচিত।
তার পরিচিতির গণ্ডি ছাড়িয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে শুরু করে বিশ্বের নানা দেশেও।এই পরিচিতির সুত্রপাত ভারতীয় টিভি চ্যানেল জি বাংলার কমেডি বিষয়ক রিয়েলিটি শো মীরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জার। এই শো-এর সিজন ছয় তে যে তরুণ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন তিনি এই গ্রামের সন্তান। আবু হেনা রনি।
চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে ফিরেছেন প্রায় ১২ বছর। পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছেন স্ট্যান্ডআপ কমেডি, উপস্থাপনা ও অভিনয়। বাধ্য হয়ে তাকে থাকতে হয় ঢাকায়। কিন্তু গ্রাম কে ভুলে গেছেন রনি?

জন্মদিনে নিজের হাতে গাছ লাগিয়েছেন রনি

এসব নিয়ে রনির সঙ্গে যেদিন কথা হয় সেদিন ছিল তার জন্মদিন।

১২ ডিসেম্বর। গ্রামকে যে ভুলে যাননি সেটার প্রমাণ মেলে তাকে ফোন করার পর। হাসতে হাসতে বলেন, ‘আমি কাল রাতেই গ্রামে এসেছি। জন্মদিনটা গ্রামে মায়ের সাথে কাটাতে চাই।’শুধু জন্মদিন না, নিয়মিতই গ্রামে যান রনি।
শুটিং না থাকলে, কাজের ফাঁকে একটু ফুসরত পেলেই রনি গাড়িটা নিয়ে বের হয়ে পড়েন। ঠিকানা তখন হয়ে যায় চলনবিল, নিজের গ্রাম।

মায়ের সাথে রনি

অবশ্য বাড়ি যাওয়ার পেছনে মায়ের পরেই যে জিনিসগুলো টানে সেগুলো নানারকম পোষা প্রাণী আর গাছগাছালি। রনি জানান, গ্রামের বাড়িতে তার কবুতর আছে প্রায় ১০০ টি। হাঁসও আছে বেশ কিছু। পালেন মুরগিও। পোষা প্রাণীর তালিকায় আরও যা আছে সেসব শুনলে চক্ষুচড়ক গাছ হবে যে কারো। তিতির, খরগোস, ঘুঘু পাখি নানা কিছু আছে তার পোষা। এসব প্রাণীকে তাদের নিজ হাতে খাওয়ানোর মতো শান্তি তিনি আর কোথাও পান না বলেই জানালেন আলাপে। পাশাপাশি বিভিন্ন ফলের গাছ আছে তার। সেসব ফলে সারাবছর এই বাড়ি টইটম্বুর থাকে।

বললেন, ‘এবারের জন্মদিনে বেশ কিছু গাছ লাগিয়েছি। এগুলো আমার পুরনো অভ্যাস। প্রাণীগুলোকে নিজের হাতে খাইয়েছি। এসব অবশ্য আমি গ্রামে আসলেই করি। বাকি সময় মা করেন।’

রনির পোষা কবুতর হাঁস মুরগি

শুধু তাই নয়, নিজের হাতে নিজের লাগানো গাছের ফল পেড়ে খাওয়া তার অন্যতম কাজ। এছাড়া গ্রামে সবজি ক্ষেতও আছে তার। সেখান থেকে নিজের হাতে সবজিও তুলে নিয়ে আসেন ঢাকায়। এটাই রনির জীবন।

কিছুদিন আগে রনির জীবনে একটা বড় ঝড় বয়ে গেছে। গাজীপুরে এক অনুষ্ঠানে গিয়ে বেলুনের গ্যাস থেকে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পুড়ে যায় রনির শরীর। দীর্ঘদিন চিকিৎসা চলে ঢাকায়। এখন বেশ সুস্থ। এখন ব্যস্ত আছেন উপস্থাপনা আর বিভিন্ন স্টেজ শো নিয়ে।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

All Rights Reserved ©2024