বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

হেক্সা জয়ের মিশনে চাপে অস্ট্রেলিয়া

হেক্সা জয়ের মিশনে তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছে অস্ট্রেলিয়া। দ্বিতীয় ওভারে ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের পর পঞ্চাশ রানের মধ্যে আরও দুই উইকেট হারিয়েছে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। জোড়া আঘাতে অজিদের ওপর তাণ্ডব চালান ভারতীয় পেসার জাসপ্রীত বুমরাহ।

ইনিংসের প্রথম ওভারে ১৫ রান নেন দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও ট্রাভিস হেড। তবে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই অজি ওপেনার ওয়ার্নারকে স্লিপে দাঁড়ানো বিরাট কোহলির হাতে বন্দি করেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি মোহাম্মদ শামি। ৩ বলে ৭ রানে সাজঘরে ফিরে যান বাঁহাতি অলরাউন্ডার। ১ চার ও ছয়ে ১৫ রানে মিশেল মার্শকে ফেরান বুমরাহ। ৪১-এর পর ৪৭ রানে সবচেয়ে বড় উইকেট হারায় অজিরা। ৪ রানে স্টিভ স্মিথকেও আউট করেন এই ভারতীয় পেসার।

এর আগে ফাইনালে প্রথমে ব্যাটিং করে ২৪১ রানে অলআউট হয় ভারত। প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজে শুরু করেন রোহিত শর্মা। জশ হ্যাজেলউডের প্রথম ও তৃতীয় ওভারে তিনটি চার ও একটি ছক্কা হাঁকান ভারত অধিনায়ক। পঞ্চম ওভারেই ৪ রানে মিচেল স্টার্কের বলে সাজঘরে ফেরেন শুভমান গিল। দলীয় ৮০ রানের মাথায় ৩১ বলে ৪৭ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন রোহিত। পরের ওভারে মাত্র ৪ রানে শ্রেয়াস আইয়ারকে আউট করেন অধিনায়ক প্যাট কামিন্স।

ওয়ানডাউনে নেমে একপ্রান্ত আগলে রেখে আগ্রাসী মেজাজে খেলেন বিরাট কোহলি। চতুর্থ উইকেটে রাহুলকে নিয়ে ৬৭ রানের জুটি গড়েন চলতি বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ক্যারিয়ারের ৭১তম ফিফটি পূরণ করে ৫৪ রানে ফেরেন কোহলি। তাকে বোল্ড করেন কামিন্সে। কোহলির বিদায়ের পর রাহুল ছাড়া বাকি সবাই ব্যর্থ হয়। সূর্যকুমার যাদবের আগে ব্যাটিং নামা রবীন্দ্র জাদেজা ২২ বলে ৯ রানে ফিরে যান।

ক্যারিয়ারের ১৬তম ফিফটি পূরণ করে সাজঘরে ফেরত যান রাহুল। ১০৭ বলের মন্থর ব্যাটিংয়ে ৬৬ রানে স্টার্কের শিকার হন। সূর্যকুমার ১৮ রানে হ্যাজেলউডের বলে জস ইংলিশের হাতে ক্যাচ দেন। শেষ পর্যন্ত ২৪০ রানেই থামে ভারতের ইনিংস। মিচেল স্টার্ক অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ ৩টি এবং জস হ্যাজেলউড ও প্যাট কামিন্স ২টি করে উইকেট শিকার করেন। ম্যাক্সওয়েল ও জাম্পা একটি করে উইকেট শিকার করেন।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

All Rights Reserved ©2024