শুক্রবার, ১২ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

অজানা জ্বরে ১৫ দিনে ৫২ শিশুর মৃত্যু

এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে ভারতের উত্তরপ্রদেশের কয়েকটি জেলায় কয়েকশ শিশুর উচ্চমাত্রার জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।তাদের মধ্যে অনেকেই জয়েন্টে ব্যথা, মাথাব্যথা, পানিশূন্যতা ও বমি বমি ভাবের মতো উপসর্গের কথা জানিয়েছে।কয়েকজনের পা ও বাহুতে ফুসকুড়ি ছড়িয়ে পড়ার খবরও পাওয়া গেছে।গত বুধবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উত্তরপ্রদেশে জ্বরে আক্রান্ত শিশুরা কেউ কোভিড-১৯ পজিটিভ নয়, তাদের কারও ডেঙ্গুও শনাক্ত হয়নি।এই ‘অজানা জ্বরে’ গত সপ্তাহে কমপক্ষে ৫০ জন, যার অধিকাংশই শিশু মারা গেছেন।রাজ্যের পূর্বাঞ্চলের ছয়টি জেলায় কয়েকশ মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এরমধ্যেই ভারতের সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য উত্তরপ্রদেশের গ্রামাঞ্চলে ‘রহস্যজনক জ্বর’ নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।গত সোমবার ফিরোজাবাদ মেডিক্যাল কলেজ পরিদর্শনের সময় একটি শিশুকে দেখতে গিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথ।জানা গেছে, গতকাল বুধবার সেই শিশুর মৃত্যু হয়েছে।ফিরোজাবাদ মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল সঙ্গীতা আনেজা এ ব্যাপারে বলেন, বর্তমানে হাসপাতালে ২৪০ জন শিশু ভর্তি আছে।সবাই ডায়রিয়া ও বমির উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল।হাসপাতালের চিকিৎসকেরা বলছেন, ভর্তি হওয়া ওই শিশুদের মধ্যে ডেঙ্গু ও ম্যালেরিয়ার উপসর্গ রয়েছে।তবে কারো করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়েনি। অজানা জ্বরে আক্রান্ত শিশুদের রক্তে প্লাটিলেটের অভাব রয়েছে।পাশাপাশি ব্যাপক জ্বর আছে তাদের।এতো শিশু একসঙ্গে অজানা জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হওয়ায় ফিরোজাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জায়গার অভাব দেখা দিয়েছে।ওই হাসপাতালের কর্মীরা বলছেন, প্রতি ঘণ্টায় ৮ থেকে ১০ জন শিশু হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।ফলে হাসপাতালে বেডের চরম সঙ্কট দেখা দিয়েছে।আলাদা ওয়ার্ড করেও পরিস্থিতি সামলানো যাচ্ছে না।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

All Rights Reserved ©2024