রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শূকরের হৃৎপিণ্ড প্রতিস্থাপন করা মানুষটিকে বাঁচানো গেল না

মিশিগান প্রতিদিন ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বে প্রথমবারের মতো মানবদেহে প্রতিস্থাপিত হয়েছিল শূকরের হৃৎপিণ্ড। তবে ডেভিড বেনেট নামের ৫৭ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে আর বাঁচানো যায়নি। গতকাল মঙ্গলবার তিনি মারা যান । ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ৫৭ বছর বয়সী বেনেটের শারীরিক অবস্থা কয়েক দিন ধরেই খারাপ যাচ্ছিল।

গত জানুয়ারিতে চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ডেভিড বেনেট নামের ৫৭ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির দেহে সাত ঘণ্টা অস্ত্রোপচারের পর সফলভাবে শূকরের হৃৎপিণ্ড প্রতিস্থাপিত হয়। চিকিৎসকেরা তখন বলেছিলেন, বেনেটের বাঁচার শেষ আশা ছিল এই অস্ত্রোপচার।

ওই সময় যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ম্যারিল্যান্ড মেডিকেল স্কুলের কার্ডিয়াক জেনোট্রান্সপ্লান্টেশন প্রোগ্রামের সহপ্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মাদ মহিউদ্দিন জানান, অস্ত্রোপচারটি কয়েক বছরের গবেষণার ফল। শূকরের হৃৎপিণ্ড প্রথমে একটি বানরের দেহে প্রতিস্থাপিত হয়েছিল।

গত বছরের অক্টোবরে যুক্তরাষ্ট্রে শূকরের কিডনি সফলভাবে মানবদেহে প্রতিস্থাপিত হয়েছিল। তবে যার দেহে তা প্রতিস্থাপিত হয়েছিল ওই ব্যক্তি ক্লিনিক্যালি মৃত ছিল।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

বিজ্ঞাপন

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

All Rights Reserved ©2024