চাকরির নীতি পাল্টে সুরাহা দিল আমেরিকা

আমেরিকায় চাকরির নীতি নিয়ে যে জটিলতা ছিলো তা নিয়ে জো বাইডেনের সরকার কিছুটা সুরাহা দিলো। আমেরিকান সংস্থায় কর্মরত বিদেশি কর্মীরা এইচ-১বি এবং তাদের স্বামী, স্ত্রী ও পরিবারের অন্যরা এইচ-৪ ভিসা পেয়ে থাকেন।

এইচ-৪ ভিসাধারীদের মধ্যে ভারতীয় মহিলাদের সংখ্যা ৯০ শতাংশেরও বেশি। আবার অন্য দেশে কর্মরত আমেরিকান সংস্থার কর্মীকে আমেরিকার দফতরে এসে কাজ করতে হলে এল-১ ভিসা নিতে হয়। তাঁদের পরিবার পায় এল-২ ভিসা।

এইচ১-বি ভিসা নিয়ে আমেরিকায় যারা এসেছেন, তাদের স্বামী বা স্ত্রীদের চাকরি করার ক্ষেত্রে অনেকটাই সুবিধা মিলবে বলে আশা করা হচ্ছে। এখন থেকে তাদের আমেরিকায় চাকরি করার জন্য প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র বা ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ শেষ হওয়া সত্ত্বেও সেটির মেয়াদ আপনা থেকেই ১৮০ দিন পর্যন্ত বৃদ্ধি পাবে।

এই নতুন নীতির ফলে বিশেষ করে প্রবাসী ভারতীয় মহিলারা উপকৃত হবেন বলে মনে করা হচ্ছে। একই সুবিধা পাবেন এল-১ ভিসাধারীদের স্বামী বা স্ত্রীরাও। তবে তাদের নতুন করে এর জন্য কোনও আবেদন করতে হবে না।

গত মার্চ মাসে ১৩ জন ভারতীয়-সহ ১৫ জন আমেরিকার একটি অভিবাসন নীতিকে আদালতে চ্যালেঞ্জ করেন। অনেকের মতে, ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ এক বার শেষ হওয়ার পরে তার পুনরায় পারমিট নিতে অনেক সময়ে দু’বছর পর্যন্ত লেগে যায়।

স্বাভাবিক ভাবেই ছাড়পত্র না থাকায় চাকরি চলে যায় অনেকেরই। সেই সমস্যা দূর করতেই এই মামলাটি করা হয়েছিল। ওই নীতিতে বলা ছিল, ওয়ার্ক পারমিট না থাকলে এইচ-১বি এবং এল-১ ভিসাধারীদের স্বামী বা স্ত্রীরা আমেরিকায় কাজ করতে পারবেন না। সুতরাং পারমিটের মেয়াদ ফুরোনোর পরে যাঁরা সেগুলির মেয়াদ বাড়ানোর জন্য আবেদন জানাতেন সেই আবেদনের একটা অনেকেরই কোনো সুরাহা মেলেনি।

এদিকে কোভিড অতিমারির কারণে বহু পারমিটের মেয়াদ আর বাড়ানোই হয়নি, যার ফলে অনেকেই চাকরি হারাচ্ছিলেন। এই পরিস্থিতিতে গত বুধবার ওয়াশিংটনের ওয়েস্টার্ন ডিস্ট্রিক্টের ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট আমেরিকার নাগরিকত্ব ও অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা ইউএসসিআইএস-কে নির্দেশ দিয়েছে, এইচ-৪ এবং এল-২ ভিসাধারীদের ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ আপনা থেকেই ছ’মাস অর্থাৎ ১৮০ দিন পর্যন্ত বাড়ানোর অনুমতি দিতে হবে।

এল-২ ভিসা যাদের রয়েছে, তারা কোনো রকম আবেদন ছাড়াই এই সুবিধা পাবেন। এইচ-৪ ভিসাধারীরা পারমিটের মেয়াদ শেষ হলে তা বাড়ানোর আবেদন করবেন। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যদি তার পরেও পারমিটের মেয়াদ বাড়ানোর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে না পারেন, তা হলে আপনা থেকেই সেটির মেয়াদ ছ’মাস বেড়ে যাবে।