সৌদিতে গানের উৎসব, প্রথম দিনেই দর্শক ১ লাখ ৮০ হাজার!

পাশ্চাত্যের হাওয়া লেগেছে রক্ষণশীল সৌদি সংস্কৃতিতে। বিনোদনের নানা উৎসে হাজার হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগের অংশ হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে।

এখন উন্মুক্ত হচ্ছে সিনেমা হল, নির্মিত হচ্ছে চলচ্চিত্র। এখন বিভিন্ন দেশের নামদামী ব্যান্ডদলগুলোর অংশগ্রহণে হচ্ছে কনসার্ট উৎসব। আর এ হাওয়া বদলের মূলে রয়েছেন সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান।

এরই অংশ হিসেবে রিয়াদে অনুষ্ঠিত হলো সবচেয়ে বড় গানের অনুষ্ঠান। আর প্রথম দিনেই একসঙ্গে নেচে-গেয়ে সঙ্গীত উপভোগ করলেন প্রায় ১ লাখ ৮০ হাজার লোক।

এমএলবি ইস্ট সাউন্ডস্ট্রিম-২১ নামে ব্লকবাস্টার এই গানের অনুষ্ঠানটি ৪ দিন ব্যাপী হবে। অনুষ্ঠানটি বৃহস্পতিবার শুরু হয়।মানুষ দলবেধে আসছে দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য।

চারদিনে প্রায় ৫ লাখ দর্শককে স্বাগত জানানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। যা টুমরোল্যান্ড এবং কোচেলাকে ছাড়িয়ে সবচেয়ে বড় গানের অনুষ্ঠানে পরিণত হতে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে শক্তশালী নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। যেকোনো অসামাজিক কাজ এবং দর্শকদের নিরাপত্তার জন্য প্রায় ৮ হাজার নিরাপত্তা কর্মী এবং স্বেচ্ছাসেবককে মাঠে নামানো হয়েছে।

আয়োজকরা দর্শকদের এ নিরাপত্তা ব্যবস্থার সাথে পরিচিত করার জন্য সাউন্ডস্ট্রিমে যোগ দিতে উৎসাহিত করছে। যেকোন অন্যায় কাজের বিরুদ্ধে এমএলবিইস্ট অ্যাপ এ রিপোর্ট করার জন্য দর্শকদের উৎসাহিত করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, সৌদি আরবে ১৯৭০ সালের পর সিনেমা হলগুলো বন্ধ করে দেন দেশটির ইসলামিক নেতারা। দীর্ঘ ৩৫ বছর ধরে সেখানে কোনো সিনেমা হল ছিল না। পরে ২০১৮ সালে সিনেমা হলের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দেশটির রাজপরিবার। গত তিন বছরে ১১ প্রতিষ্ঠানকে সিনেমা হল নির্মাণ এবং চলচ্চিত্র প্রদর্শনের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। এখন সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখার সুযোগ পাচ্ছেন সৌদি নারীরা।