স্কুল-কলেজ বন্ধ, বন্ধ ট্রেনও; খোলা শুধু মদের দোকান

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। তাই আগেই বাতিল করে দেওয়া হয় বিভিন্ন কর্মসূচি। আজ সব কিছু নিয়ে রাজ্যের মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী নবান্নে বৈঠকে বসেন। এই বৈঠকের পর স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের নির্দেশ জারি করেছে নবান্ন। সন্ধ্যা থেকে চলবে না লোকাল ট্রেনও। এত বিধি-নিষেধ জারি হলেও মদ বিক্রিতে কিন্তু কোনো নিষেধের বালাই নেই। মদের দোকান খোলা থাকবে।

গত রবিবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী জানান, আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত কী বন্ধ আর কী খোলা থাকবে। তবে মদ্যপদের জন্য সুখবর- মদের দোকান সম্পর্কে আলাদা করে কিছু বলা হয়নি। রেস্তোরাঁ-বার খোলা থাকবে। তবে উপস্থিতি থাকবে ৫০ শতাংশ।

মদের দোকান নিজস্ব নিয়মে খোলা থাকবে। সেখানে কোনো সময় বেঁধে দেওয়া হয়নি। বার-রেস্তোরাঁ রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। ফলে মদ্যপানের ক্ষেত্রে কোনো বিধি-নিষেধ থাকছে না। আর দোকান-বাজার সব কিছু রাত ১০টায় বন্ধ করতে হবে। কারণ রাত ১০টা থেকেই শুরু হয়ে যাবে কারফিউ। তখন অবশ্য মদের দোকানও বন্ধ করে দিতে হবে।

এখানে বলা হয়েছে, শেষ সময় পর্যন্ত পানশালা বা রেস্তোরাঁয় কাটানো যাবে না। কারণ রাত ১০টা থেকে কারফিউ শুরু হয়ে যাবে। সে ক্ষেত্রে বন্ধ করতে হবে সব কিছু। এই বিধি-নিষেধ অবশ্য ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। তারপর আবার নতুন নির্দেশিকা জারি করা হবে। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।