পেটের ক্ষুধায় মানুষ কুকুর

কবিঃ শাহী সবুর
কে এলি তুই ডাসবিনেতে
কুকুর নাকি একটু দাঁড়া,
আজকে তোরে যমের ঘরে
আচ্ছা মতন করবো তাড়া।
তিন দিন ধরে খাই না কিছু
উপোস করে আছি আমি,
একটুখানি পঁচা খাবার
আমার কাছে অনেক দামী।
তোরা কুকুর মানুষ তোদের
যত্ন করে পালে ঘরে,
মানুষ গেলে মানষের কাছে
মারতে আসে লাঠি ধরে।
মানুষ জাতির মাঝে এখন
নেই সে আগের মানবতা,
মানুষ এখন শোনে না আর
দুঃখী জনের দুঃখের কথা।
বিলাসবহুল বাড়ি করে
মানুষ থাকে কাঁচের ঘরে,
সুখী জনে খোঁজ রাখে না
দুঃখী জনে কোথায় মরে?
ক্ষুদ্র স্বার্থে আঘাত লাগলে
মানুষ জাতি জ্বলে উঠে,
প্রতি হিংসার প্রতিশোধে
চোখে যেন আগুন ছোটে।
স্বার্থে একটু আঘাত লাগলে
ঝগড়া করে কুকুর জাতি,
তাই বলে সে অস্ত্র নিয়ে
মারে কি তার নিজের সাথী?
তোরা কুকুর আমরা মানুষ
ভালো এখন বলবো কাকে?
মনুষ্যত্বের বিয়োগ হলে
মানুষ জাতির আর কি থাকে?
খুন খারাপি মারামারি
মানুষ এখন সবার আগে,
বলতে গেলে সে সব কথা
আমার নিজের লজ্জা লাগে।
অস্ত্র বাজির পিছে মানুষ
যে টাকাটা খরচা করে,
সেই বাজেটের কিছু দিলে
অনাহারে আর কে মরে?
জাতি ভেদে প্রভেদ অনেক
আমরা সেটা সবাই জানি,
ক্ষুধার কাছে মানুষ কুকুর
নেই ভেদাভেদ সেটা মানি।
ছোট্ট একটু পেট মানুষের
ক্ষুধায় যেন অতল পুকুর,
পেটের ক্ষুধায় করলে তাড়া
এক খাদ্য খায় মানুষ কুকুর।