কেন এত আয়োজন?

কবিঃ শাহী সবুর

কার সাথে ধরনীতে বাঁধি আমি ঘর?
কে বা সে আপন জন কে বা সেই পর?
আঁধারে চলিতে পথ ছায়া যায় সরে,
তবে আর কার পরে থাকি আশা করে?
সুদিনে সুজন আসে দুর্দিনে সে নাই,
স্বার্থের সুবাসেতে লালিত সবাই।
দিতে যদি পারি তবে সবে আসে নিতে,
প্রতিদান কে বা কবে চায় ফিরে দিতে?
আমি তো আমার নই ঘুমে বুঝা যায়,
কার লাগি আয়োজন বুঝা বড় দায়।
ক্ষণিকের খেলা ঘরে আমি নটরাজ,
অকারণে চলাফেরা নাটকের সাজ।
রংহীনা বায়ু ভরে আমি চলি ফিরি,
কুহকিনী মায়াবিনী রাখিয়াছে ঘিরি।
মোহমায়া দুটি চোখে অন্তরে লোভ,
বুঝিনি কারণ কি তা মনে বড় ক্ষোভ।
পৃথিবীতে কেন আসি কেন যাই চলে?
জিজ্ঞাসিলে সুধীজনে দেয় না তা বলে।
এ জগতে প্রাণী কুলে নর নিরুপায়,
নিত্য অভাবে তার সুখী হওয়া দায়।
পরধন হরণেতে মানুষে প্রেশান,
সুখী ভবে হয়েছে কে মেলে না প্রমাণ।
ক্ষণিকের দুনিয়াতে অট্টালিকা গড়ে,
অজানায় চলে গেলে সব রবে পড়ে।
নিরালাতে বসে মন দেখ তুমি ভেবে,
তোমার এ উপার্জন কাকে তুমি দেবে?
তুমি তো তোমার নয় তবে কে আপন?
কার জন্য কি কারণে এত আয়োজন?