গামলায় চড়ে গেলেন বিয়ে করতে গেলেন তারা

রান্না করার বড় অ্যালুমিনিয়ামের গামলায় চেপে মন্দিরে বিয়ে করতে গেলেন বর-কনে। বন্যা-কবলিত ভারতের কেরালার আলাপুঝা জেলার থালাভাডি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মানুষের হাহাকারের মাঝে দেখা গেল অন্যরকম এক দৃশ্য। প্রাকৃতিক প্রতিকূলতাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন এক যুগল। অবিশ্রান্ত বর্ষণের শব্দ মুছে বেজে উঠল বিয়ের সানাই। প্লাবনের মাঝেই এক হলো চার হাত।

বর আকাশ ও কনে ঐশ্বর্য দু’জনেই স্থানীয় একটি হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মী। তাদের বিয়ের দিন আগে থেকেই ঠিক হয়েছিল ১৮ অক্টোবর (সোমবার)। শেষ মুহূর্তে এসে বাধ সাধল বন্যা। তুমুল বৃষ্টিতে রেড অ্যালার্ট জারি করে স্থানীয় প্রশাসন। কিন্তু তাই বলে তো আর বিয়ে বন্ধ রাখা যায় না।

অগত্যা গামলা জোগাড় করে তাতে ভেসে ভেসেই বিয়ের আসরে পৌঁছালেন আকাশ, ঐশ্বর্য। ধুমধাম করেই সম্পন্ন হলো বিয়ের অনুষ্ঠান। তবে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে অতিথিদের সংখ্যা ছিল হাতে গোনা।

একটি অ্যালুমিনিয়ামের রান্নার গামলায় চড়ে বিয়ে করতে যান ওই যুগল। তাদের এই গামলা-যাত্রার ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এই নবদম্পতি বলেছেন, ‘অনেক দিন পর আমাদের বিয়ে ঠিক হয়েছে। কোভিডবিধি মেনে কম লোকজনকেও ডাকা হয়েছে। জানি, খুব বৃষ্টি হয়েছে। খুব খারাপ অবস্থা। কিন্তু তাও বিয়ে পিছিয়ে দিতে পারলাম না।’