ব্যায়াম করলে আর্থিক পুরস্কার দেবে ব্রিটিশ সরকার

ব্যায়াম মানুষের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ব্যায়াম বড় বড় রোগ যেমন হৃদরোগ, ক্যান্সার, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিকস ও অন্যান্য রোগ হওয়ার ঝুঁকি কমায়, এককথায় মানুষের মৃত্যুঝুঁকি কমায়।

স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া আর ব্যায়াম করার বদলে যদি টাকা পাওয়া যায় তাহলে কেমন হতে পারে। স্কাই নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি খাবার খাওয়া এবং ব্যায়াম করার জন্য স্বাস্থ্য প্রণোদনা প্রকল্প চালু করতে যাচ্ছে ব্রিটিশ সরকার। যার ফলে ব্যায়াম করলে পুরস্কার হিসেবে টাকা পাবেন দেশটির নাগরিকরা। ২০২২ সালে অ্যাপের মাধ্যমে স্থুলতা বিরোধী এই পাইলট প্রকল্প চালু করা হচ্ছে।

সেই প্রকল্পের আওতায় এই পুরস্কারের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।
ওই অ্যাপ ব্যবহারকারীর খাদ্যাভাস ও শারীরিক কর্মকাণ্ডের হিসাব রাখবে। অ্যাপটি যুক্ত থাকবে ফিটবিটের মতো একটি ডিভাইসের সঙ্গে, যা ব্যবহারকারীকে আরও ফল ও সবজি খাওয়ার কিংবা হাঁটার পরামর্শ দেবে। ব্যায়ামের সময় বাড়ানো, হেঁটে অফিস যাওয়া কিংবা দৌঁড়ানোর মতো শারীরিক কর্মকাণ্ডের ভিত্তিতে অ্যাপে ব্যবহারকারীর পয়েন্ট যোগ হবে। এমনকি সুপার মার্কেটে কেনাকাটার বিষয়টিও ট্র্যাক করবে এই অ্যাপ। যিনি সুপারমার্কেট থেকে কম ক্যালোরির খাবার কিনবেন, তার ঝুলিতেও যোগ হবে পয়েন্ট। ওই পয়েন্টের বিনিময়ে ফুড ভাউচার, কাপড় কেনা কিংবা জিমের প্রবেশাধিকারসহ বিভিন্ন দোকান, সিনেমা ও থিম পার্কে মিলবে ছাড়।

ছয়মাসের জন্য ইংল্যান্ডে এই প্রকল্প চালু হবে। তবে ইংল্যান্ডের ঠিক কোথায় এই প্রকল্প চালু হচ্ছে তা এখনো ঘোষণা করা হয়নি। পরবর্তীতে এই পাইলট প্রকল্প সমগ্র যুক্তরাজ্যেই চালু করতে ইচ্ছুক দেশটির সরকার। এ ব্যাপারে যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাজিদ জাভেদ জানান, দেশজুড়ে স্বাস্থ্য বৈষম্য দূর করার বিষয়টি নিশ্চিত করতে আমরা যতটা সম্ভব কাজ করে যেতে চাই। নতুন এই পাইলট প্রকল্প সেই পথই সুগম করবে।