রাইস কুকারকে বিয়ে করলেন ইন্দোনেশিয়ান যুবক

বিয়ে নিয়ে প্রতিনিয়তই ঘটছে নানা অদ্ভুত ঘটনা। কয়েক মাস আগেই কাজাখস্তানের এক ব্যক্তি তার দুই বছরের শয্যাসঙ্গী পুতুলটিকে বিয়ে করে একেবারে হৈচৈ ফেলে দিয়েছিলেন। তবে এবার একজন পুরুষ তার বাড়ির রাইস কুকারের প্রেমে পড়ে বিয়ে করেছেন। ঘটা করে ওয়েডিং সেরিমনির ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেছেন। যা এখন রীতিমতো ভাইরাল।

গত ২০ সেপ্টেম্বরে রাইস কুকারটিকে বিয়ে করছেন কাহিরোল আনাম। মোটেও মজা করে নয়, এই বিয়ের বিষয়ে কাহিরোল কিন্তু রীতিমতো সিরিয়াস।

জানিয়েছেন, তিনি রাইস কুকারকে বিয়ে করে বেজায় খুশি। কেন?
এক নম্বর কারণ, বউ রীতিমতো ফর্সা।

দ্বিতীয়ত, সে বেশি কথা বলে না, যা থেকে দাম্পত্য জীবনে ঝগড়া-ঝঞ্ঝাটের সম্ভাবনা থাকে।

তিন নম্বর কারণ তো অতি গুরুত্বপূর্ণ, তাঁর বউ ভাল রান্না করে।

বলা বাহুল্য, বউটি যদি হয় ব্র্যান্ড নিউ রাইস কুকার, তবে সে কাহিরোলের জন্য নিয়মিত রান্না করবেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিয়ের ছবি পোস্ট করার সময় ক্যাপশানে বউটির এইসব গুণের কথা কাহিরোল লিখেছেন একেবারে যাকে বলে মন খুলে।

ইন্দোনেশিয়ার কাহিরোল আনামের অভিনব বিয়ের ছবি লাইক করেছে ৪৪ হাজার নেটিজেন। এখনও অবধি ১৩ লক্ষ ৫ হাজার রিটুইট হয়েছে সেটি। এইসঙ্গে অসংখ্য মানুষের কমেন্টের বন্যায় ভেসে গিয়েছে এই আজব বিয়ের পোস্ট।

কেউ মজা করে লিখেছেন, ‘বউ তো দারুণ! ভেতরে গরম, বাইরে ঠান্ডা!’ অনেকে আবার এই ঘটনাকে বিশ্বাসই করতে পারছেন না। তাঁদের প্রশ্ন, ‘বাস্তবেই কি রাইস কুকুরকে বিয়ে করেছেন কাহিরোল?’ আর বাকি কেউ কেউ এই ঘটনা দেখে মজাই পেয়েছেন, তাঁরা শুভেচ্ছার বন্যায় ভাসিয়ে দিয়েছেন নব দম্পতিকে।

তবে এই বিয়ে বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। চারদিন পরেই ডিভোর্সের ঘোষণা দেন কাহিরোল। এই চারদিনে কী এমন হলো যে ডিভোর্স দিতে হলো?

কারণ হিসেবে তিনি জানান, আপনি যখন রাগান্বিত হবেন এবং সুখের মুহূর্তে কোনো প্রতিশ্রুতি দেবেন না, সিদ্ধান্ত নেবেন না। ভাত চমৎকার হলেও অন্য পদের রান্নায় পারদর্শী না এই রাইস কুকার।