করোনার বিশ্ব যুদ্ধ দেখেছি আমি

কবিঃ শেফালী হোসেন

আমি একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের নির্মমতা দেখিনি
দেখেছি দুই হাজার বিশের করোনা মহামারি
আমি বিধ্বংসী কামানের গোলার শব্দ শুনিনি
শুনেছি করোনায় মৃত্যু-মিছিলের আহাজারি।
.
আমি দেখিনি, পাকিস্তানিরা কেমন করে তিন লক্ষ মা- বোনের লুটেছে সম্ভ্রম,
আমি দেখেছি এক মুঠো ভাতের জন্য
বাবা- মা পথে পথে হাত পেতেছে হরদম।

আমি দেখিনি কোনো সন্ত্রাসীকে মায়ের সামনে ছেলের বুকে পিস্তল ঠেকাতে
আমি দেখেছি করোনা আক্রান্ত মাকে ফেলে পালিয়েছে সন্তান বিনা অজুহাতে

আমি দেখিনি বাবা হারা সন্তানের কান্না
দেখেছি সন্তান হারা মায়ার চোখে বন্যা,
দেখেছি করোনায় মরেছে বলে কোনো স্বজন কবর দিতে আসেনি লাশ,
‘মা’ ছুটে গিয়ে দাফন করার জন্য নিজ হাতে কেটে এনেছে কবরের বাঁশ।

হায়রে মানুষ দুর্ভাগ্যের কারণে হলো মহামারির শিকার
তাই বিবেকের কাছে জানতে চেয়েছি আমি বার বার
কেনো বজায় রাখিস না পথে ঘাটে সামাজিক দূরত্ব সবার
শুনতে কি পাওনা প্রতিদিন,অপমৃত্যুর হৃদয়স্পর্শী হাহাকার।