ওমিক্রনের প্রধান নিশানা কি শিশুরাই, আতঙ্ক বাড়ালো মিশিগান

নিজস্ব ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের নতুন রূপ ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ক্রমে উদ্বেগ বাড়ছে। যে সব রাজ্যে ওমিক্রন সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে, সেইসব রাজ্যে ব্যাপকভাবে বাড়ছে নতুন করোনাভাইরাস সংক্রমণের সংখ্যাও।

মিশিগানের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের পরিসংখ্যান বলছে ওমিক্রন সম্ভবত শিশুদের বেশি নিশানা করছে। কারণ, মিশিগান রাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া শিশুদের সংখ্যা ক্রমে বাড়ছে। তাদের জারি করা সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, সোমবার ৩,৯৯৯ জন প্রাপ্তবয়স্ক এবং শিশু করোনা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, যা সাত দিন আগের চেয়ে ৮.৫% বৃদ্ধি পেয়েছে।

মিশিগান হেলথ অ্যান্ড হসপিটাল অ্যাসোসিয়েশনের সিইও ব্রায়ান পিটার্স সোমবার সকালে সিএনএনকে বলেছিলেন যে রাজ্যটি একটি ওমিক্রন ঢেউয়ের একেবারে শীর্ষে রয়েছে।

মিশিগান স্বাস্থ্য ও মানব পরিষেবা বিভাগ জানিয়েছে, গত পাঁচ দিনে করোনার সংক্রমণে ২৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৬১,২৩৫ জনের। প্রতিদিন গড়ে নতুন সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা ১২, ৪৪১ জনের। মহামারী শুরু হওয়ার পর থেকে এটি মিশিগানের জন্য দ্বিতীয় বৃহত্তম দৈনিক গড়।

২০২০ সালের মার্চ থেকে মহামারি করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে ১, ৫৬৮,৫৭৩ জন আক্রান্ত এবং ২৭,২৮৬ জন মারা গেছেন।

২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৫ বছর বা বেশি বয়সী রাজ্যের শিশুরা ৫,৩৯৮,৭৫৮ টি সম্পূর্ণ ডোজ পেয়েছে। এবং ১৬ বছর বা তার বেশি বয়সী মিশিগানবাসী ৬,৩২৮,৬৫৮ টি একটি ডোজ পেয়েছে।

মিশিগানের শীর্ষ স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা রাজ্যের কোভিড-১৯ পরিস্থিতিকে সংকটজনক বলে বর্ণনা করেছেন এবং ভাইরাসের চতুর্থ ঢেউয়ের মধ্যে টিকা, বুস্টার এবং মাস্কিংয়ের আহ্বান জানিয়েছেন।

মিশিগানের শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ মোহাম্মদ হোসেইন বলেন, এই মুহূর্তে পাঁচ বছরের উর্ধ্বে সকল বাচ্চাদের টিকা দেয়া এবং রোগ প্রতিরোধের জন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা খুবই জরুরী। টিকা দেয়া থাকলে অমিক্রণ খুবই মৃদু সংক্রমণ করে এবং রোগী অল্পতেই ভালো হয়ে যেতে পারেন। আশা করি অভিভাবকরা বাচ্চাদের করোনাভাইরাসের টিকা দেয়ার ব্যাপারে সচেতনতা এবং দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেবেন।