মিশিগানে স্কুল বাসের নতুন আইন, থাকছে স্বয়ংক্রিয় ক্যামেরা

কেউ কেউ নিজস্ব গাড়িতে স্কুলে শিশুকে নিয়ে আসা-যাওয়া করলেও মিশিগানের অনেক অভিভাবকই তাদের শিশুর স্কুলে আসা যাওয়ার জন্য স্কুলের বাস ব্যবহার করেন। এক্ষেত্রে অভিভাবকরা সন্তানকে স্কুলে পাঠিয়ে চিন্তিত থাকেন। স্কুল বাসে শিশুর এই যাত্রাকে অধিকতর নিরাপদ করতে সোমবার থেকে মিশিগানে স্কুল বাসের জন্য দুটি নতুন আইন কার্যকর হয়েছে। উভয়ই স্কুলে যাওয়া -আসার সময় শিশুদের নিরাপদ রাখতে সহায়তা করবে।

স্কুল জেলা এবং স্থানীয় আইন প্রয়োগকারী উভয়ই বলেছেন, তারা আশা করেন যে এই পরিবর্তন চালকদের আরও মনোযোগ দিতে এবং বাচ্চাদের সুরক্ষিত রাখতে সহায়তা করবে।

ভিক্সবার্গ কমিউনিটি স্কুল ট্রান্সপোর্টেশনের পরিচালক কারেন ম্যাককিনস্ট্রি বলেন, চালকরা প্রায় প্রতিদিনই অবৈধভাবে স্কুল বাস পাস করে। মানে প্রতিদিন, শিশুরা তাদের স্কুল বাসে ওঠার সময় ঝুঁকিতে থাকে। সোমবার থেকে বাসগুলিতে ক্যামেরা থেকে তোলা ভিডিওগুলি দেখে আইন ভঙ্গকারী চালকদের উদ্ধৃত করতে ব্যবহার করা হবে।

কেন্ট কাউন্টি শেরিফের অফিস আন্ডারশেরিফ চাক দেউইট বলেন, এখন থেকে স্কুলের বাস চালককে লাইসেন্স প্লেট দেখতে হবেনা। সেই ক্যামেরা দিয়ে, একবার এটি সক্রিয় হয়ে গেলে আশা করা যায় যে এটি গাড়ির নিবন্ধন ক্যাপচার করবে, যা চালককে সনাক্ত করতে আইন প্রয়োগকারীকে সহায়তা করবে।

আইন ভঙ্গ করলে চালক অথবা যদি কোন ব্যক্তি অনুমতি ছাড়াই বাসে উঠে, উভয় অপরাধই ৫০০ ডলার পর্যন্ত জরিমানার মুখোমুখি হতে হবে।

হোয়াইটহল জেলা স্কুল পরিবহন পরিচালক পেনি এভার্ট বলেন, যখন লাল ঝলকানি আলো আসে, স্টপ সাইন বেরিয়ে আসে। আপনি তখন বাস থেকে ৫০ ফুট দূরে থামেন। কিন্তু আমাদের শহরে সপ্তাহে অন্তত একবার এমন কেউ আছে যিনি আমাদের লাল বাতি দেখে দৌড় দেন, এজন্য আমাদের ড্রাইভাররা খুবই প্রস্তুত থাকে, তারা প্রতিনিয়ত বাসের আয়না দেখে এবং ছাত্রদের সতর্ক করার জন্য প্রস্তুত থাকে।

মিশিগান অ্যাসোসিয়েশন অব পিপিল ট্রান্সপোর্টেশনের নির্বাহী পরিচালক ডেভিড মিউসেন বলেন, “শিশুরা আমাদের সবচেয়ে মূল্যবান সম্পদ, আমরা তাদের নিরাপদ রাখতে চাই।”